Wellcome to National Portal
বাংলা একাডেমি সংস্কৃতি বিষয়ক মন্ত্রণালয়
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ১০ নভেম্বর ২০২২

কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদের ৭৪তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে একক বক্তৃতানুষ্ঠান


প্রকাশন তারিখ : 2022-11-10
বাংলা একাডেমি আজ ২৫শে কার্তিক ১৪২৯/১০ই নভেম্বর ২০২২ বৃহস্পতিবার সকাল ১১:০০টায় একাডেমির কবি শামসুর রাহমান সেমিনার কক্ষে কথাসাহিত্যিক হুমায়ূন আহমেদের ৭৪তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষ্যে একক বক্তৃতানুষ্ঠানের আয়োজন করে। অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন বাংলা একাডেমির সচিব এ. এইচ. এম. লোকমান। জোছনার কবি হুমায়ূন আহমেদ : মানুষ ও লেখক শীর্ষক বক্তৃতা প্রদান এবং ভিজ্যুয়াল উপস্থাপনা করেন লেখক, নাট্যকার ও চলচ্চিত্রকার শাকুর মজিদ। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন বাংলা একাডেমির সভাপতি কথাসাহিত্যিক সেলিনা হোসেন। 
 
এ. এইচ. এম. লোকমান বলেন, হুমায়ূন আহমেদ আমাদের সবার প্রিয় কথাশিল্পী। তাঁর কথাসাহিত্যে এ দেশের মধ্যবিত্ত মানুষের চিরায়ত জীবন অসামান্য শিল্পব্যাঞ্জনায় ভাস্বর হয়েছে। 
 
শাকুর মজিদ বলেন, হুমায়ূন আহমেদ শুধু একজন লেখকই নন, তিনি একাধারে শিক্ষাবিদ, চলচ্চিত্র পরিচালক ও প্রযোজক, গীতিকার, নাট্যকার এবং সর্বোপরি একজন স্বপ্নবান মানুষ। তিনি জীবনের বৈচিত্র্যকে সাহিত্যে সার্থক রূপ দিয়েছেন। দশকের পর দশক তাঁর এক একটি বইয়ে তিনি নিজেকে অতিক্রম করে গেছেন। সাহিত্যের সমান্তরালে হুমায়ূন আহমেদ টেলিভিশন নাটক এবং চলচ্চিত্রে নিজের দক্ষতা এবং নতুনত্বের প্রমাণ রেখেছেন। তিনি বলেন, হুমায়ূন আহমেদ এক প্রকার অকালেই প্রয়াত হয়েছেন। কিন্তু বাংলার জ্যোৎস্নাময় আকাশে তিনি চিরদিনই থেকে যাবেন তাঁর সৃষ্টির বৈভবে।  
 
কথাসাহিত্যিক সেলিনা হোসেন বলেন, হুমায়ূন আহমেদের বৈচিত্র্যময় সাহিত্যকর্মে আমরা মানবমঙ্গলের সুর শুনতে পাই। তিনি তাঁর গল্প ও উপন্যাসে এদেশের মানুষের অসাধারণ মুখচ্ছবি অঙ্কন করেছেন যা কখনও মলিন হওয়ার নয়।
 
অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন বাংলা একাডেমির উপপরিচালক ড. সাইমন জাকারিয়া। 
 
 
 
মোহাম্মদ আকবর হোসেন  
উপপরিচালক

Share with :

Facebook Facebook